Search Here

Most Recent

২৩ জুলাই, ২০২১

ষোড়শ মহাজনপদ | 16th Mahajanapadas | Indian History

 ষোড়শ মহাজন পদ  Ancient Indian History

ষোড়শ মহাজনপদ     www.gkghor.in
Indian History



নমস্কার বন্ধুরা,

               আজকে আপনাদের জন্য প্রাচীন ভারতের ইতিহাসের (Ancient Indian History) উপর থেকে ষোড়শ মহাজনপদ(16th Mahajanapadas) এর উপরে আলোচনা করা হবে। আপনারা নিচে দেওয়া ষোড়শ মহাজনপদের সংক্ষিপ্ত বিবরণ দেখে নিন। তার পর আপনাদের প্রাকটিস করার জন্য নিচে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্নোত্তর(MCQ Question Answer) দেওয়া হয়েছে সেগুলোও দেখে নিতে পারেন। আপনাদের প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষার জন্য এই প্রশ্ন উত্তর গুলি উপযোগী হবে বলে মনে করি। 

ষোড়শ মহাজনপদ

                                    
 ষষ্ঠ শতকে পরবর্তী বৈদিক যুগে ষোড়শ মহাজনপদের উল্লেখ পাওয়া যায়। অঙ্গুত্তরনিকায় এবং ভগবতী সূত্রে মহাজনপদের উল্লেখ আছে। সংস্কৃত গ্রন্থ মহাবস্তুতে ষোড়শ মহাজনপদের আংশিক বর্ণিত আছে। তামিল গ্রন্থ শিল্পাদিক্রমে তিনটি মহাজনপদ মগধ, বৎস  এবং অবন্তীর উল্লেখ পাওয়া যায়। ষোড়শ মহাজনপদের 16 টি মহাজন পদের মধ্যে 14 টি হলো রাজনৈতিক এবং দুটি হলো গণতান্ত্রিক। রাজতান্ত্রিক রাজ্যগুলির মধ্যে সর্বাধিক শক্তিশালী  চারটি রাজ্য ছিল - মগধ, কৌশল, বৎস এবং অবন্তী মহাজনপদ। নিচে ষোড়শ মহাজনপদ গুলি আলোচনা করা হল। 

   
  
1. কাশি : কাশির রাজধানী ছিল বারানসি। মহাভারতের অনুসারে এই রাজ্যের সংস্থাপক ছিলেন দিবোদাস নামে একজন রাজা ।কাশির  নিবাসীদের সর্বপ্রথম উল্লেখ পাওয়া যায় অথর্ব বেদে। এখানকার সর্বাধিক শক্তিশালী রাজা ছিলেন ব্রম্হদত্ত। বানারাস সংগীত শিক্ষা এবং বস্ত্র শিল্পের জন্য প্রসিদ্ধ ছিল। 



2. কোশল : কোশল এর রাজধানী ছিল শ্রাবস্তী। সরায়ু নদী এই রাজ্যকে উত্তর ভাগ এবং দক্ষিনে দুই ভাগে বিভক্ত করেছে। উত্তরে কোশলের রাজধানী ছিল শ্রাবস্তী এবং দক্ষিনে কোশলের রাজধানী ছিল কুসবতী।কোশল এবং মগধের মধ্যে সংঘর্ষ এখানকার সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ ঘটনা। প্রসেনজিৎ ছিলেন এখানকার সর্বাধিক প্রসিদ্ধ প্রশাসক। 



3. অঙ্গ : অঙ্গ মহাজনপদের রাজধানীর ছিল চম্পা। আধুনিক ভাগলপুর এবং মুঙ্গের জেলাতে অঙ্গ মহাজনপদটি অবস্থিত। চম্পা নরেশ দধিবাহন মহাবীরের ভক্ত ছিলেন।


4. চেদি :  চেদি রাজ্যের রাজধানী ছিল শক্তিমতি। চেদি রাজ্য আধুনিক বুন্দেলখন্ডে অবস্থিত।

5.বৎস বা বংশ:  এই মহাজনপদের রাজধানী হল কোসাম্বি এই মহাজনপদটি যমুনা নদীর তীরে অবস্থিত|




 6. মগধ: মগধের রাজধানী ছিল গিরিব্রজ বা রাজগীর। আধুনিক পাটনা, গয়া এবং শাহবাগ জেলার ক্ষেত্র নিয়ে সম্মিলিত ছিল। এই রাজ্যের উত্তরে গঙ্গা, পশ্চিমে সোন,পূর্বে চম্পা তথা দক্ষিণের বিন্দাচল পর্বত ছিল।  অথর্ববেদ তথা পঞ্চবিংশতে  মগধ বাসিদের ব্রত্য বলে নিন্দা করা হয়েছে।




 এছাড়াও ষোড়শ মহাজনপদ এর মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ ছিল 7. কুরু, রাজধানী ছিল ইন্দ্রপ্রস্থ। 8. পাঞ্চাল-  উত্তর পাঞ্চলের রাজধানী ছিল অহিছত্র এবং দক্ষিণ পাঞ্চলের রাজধানী ছিল কাম্পিল্য। 9. মৎস্য জনপথ- রাজধানী ছিল বিরাট নগর। 10. শূরসেন- রাজধানী যমুনা নদীর তীরবর্তী অঞ্চল মথুরা। 11. অস্মক- রাজধানী ছিল পোতান বা পোটিন।  অস্মক ছিল দক্ষিনে অবস্থিত একমাত্র মহাজনপদ।12.  অবন্তী- উত্তর অবন্তী রাজধানী ছিল উজ্জয়িনী,দক্ষিণ অবন্তী রাজধানী ছিল মহেশমতি বা আধুনিক মহেশ্বর। 13. গান্ধার মহাজনপদের রাজধানীর ছিল তক্ষশীলা। 14. কম্বোজ- কম্পোজের রাজধানী ছিল রাজপুর বা হাটক। কম্বোজ ঘোরার জন্য বিখ্যাত ছিল। 15. বজ্জি সংঘ-  রাজধানীর বৈশালী বা আধুনিক বসার। 16.মল্ল রাজ্য এই মহাজনপদ ইউপির দেবপ্রিয়া জেলায় অবস্থিত মহাজনপদের রাজধানীর ছিল কুশিনগর। 


👉 Pre- History MCQs

👉 Indus Valley Civilization MCQs

👉 Vedic Civilization MCQs


কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন